শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২৪
Bookmark
0
মূলপাতানির্বাচন-২০২৪স্বতন্ত্র প্রার্থীদের কেন ভয় পাচ্ছে জাতীয় পার্টি এবং ১৪ দল

স্বতন্ত্র প্রার্থীদের কেন ভয় পাচ্ছে জাতীয় পার্টি এবং ১৪ দল

এ নিয়ে জাতীয় পার্টির অসন্তোষের সীমা নেই। জাতীয় পার্টির পক্ষ থেকে আসন সংখ্যা কমানোর ব্যাপারে আপত্তি নেই। কিন্তু আপত্তি স্বতন্ত্র প্রার্থীদের উপস্থিতিতে।

এবার নির্বাচনে সবচেয়ে বড় আতঙ্কের নাম স্বতন্ত্র প্রার্থীরা। জাতীয় পার্টির সঙ্গে আওয়ামী লীগের যে আসন ভাগাভাগির সমঝোতার বৈঠক চলছে, সেই সমঝোতার বৈঠকে প্রধান বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা। আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে যারা স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে দাঁড়িয়েছেন তারা এবার তেমন বাধা পাচ্ছেন না দলের পক্ষ থেকে। এ নিয়ে জাতীয় পার্টির অসন্তোষের সীমা নেই। জাতীয় পার্টির পক্ষ থেকে আসন সংখ্যা কমানোর ব্যাপারে আপত্তি নেই। কিন্তু আপত্তি স্বতন্ত্র প্রার্থীদের উপস্থিতিতে। কিন্তু আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে যে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের সরিয়ে দেওয়ার ক্ষমতা তাদের নেই।

স্বতন্ত্র প্রার্থীদের ব্যাপারে যে জাতীয় পার্টিরই শুধু আতঙ্ক তা নয়, ১৪ দলের শরিক যারা মনোনয়ন পাচ্ছেন তাদেরও বড় ধরনের উদ্বেগ রয়েছে। ১৪ দলের কোন শরিকই তাদের নির্বাচনী এলাকায় স্বতন্ত্র প্রার্থীদেরকে চাচ্ছেন না। একমাত্র ওয়ার্কার্স পার্টি ফজলে হোসেন বাদশা ছাড়া অন্য কোন প্রার্থী স্বতন্ত্র প্রার্থীদের সঙ্গে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করছেন না।

প্রশ্ন উঠেছে জাতীয় পার্টি এবং ১৪ দলের শরিকরা কেন স্বতন্ত্র প্রার্থীদের ব্যাপারে এত নেতিবাচক? কেন তারা স্বতন্ত্র প্রার্থীদের ভোটের মাঠে চাচ্ছেন না? এর উত্তরে বিভিন্ন নির্বাচনী এলাকার পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে দেখা গেছে যে, স্বতন্ত্র প্রার্থীদের ভীতির একাধিক কারণ রয়েছে। যেখানে জাতীয় পার্টির প্রার্থী রয়েছে সেখানে যদি নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বসে যান, তাহলে আওয়ামী লীগের যিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী তার পক্ষে নৌকার নেতাকর্মীরা কাজ করবেন। এ ধরনের একটি শঙ্কা রয়েছে জাতীয় পার্টির। একইভাবে ১৪ দলের প্রার্থীরা নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করলেও সেখানে তারা আওয়ামী লীগের কর্মীদের নির্বাচনের মাঠে পাবেন না। বরং আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা স্বতন্ত্র প্রার্থীর পক্ষে কাজ করতে পারেন বলে অনেকে মনে করছেন। এরকম একটি বাস্তবতায় আওয়ামী লীগ করা যারা স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে দাঁড়িয়েছেন, তারা আওয়ামী লীগের ভোটের একটি বড় অংশ কেটে নিতে পারে।

জাতীয় পার্টি এবং ১৪ দলের শরিকদের সাংগঠনিক অবস্থা অত্যন্ত দুর্বল। কাগজে কলমে জাতীয় পার্টি সংসদে প্রধান বিরোধী দল হলেও সারা দেশে তাদের সাংগঠনিক ভিত্তি ক্রমশ দুর্বল হয়ে পড়ছে। বিশেষ করে এরশাদের মৃত্যুর পর জাতীয় পার্টির সাংগঠনিক শক্তি অনেক দুর্বল এবং গত ১৫ বছরে ক্ষমতার চার পাশে থাকার কারণে জনগণের মধ্যেও তাদের ব্যাপারে একটি নেতিবাচক ধারণা তৈরি হয়েছে। তারা আওয়ামী লীগের বি টিম হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে বা একান্ত অনুগত বিরোধী দল হিসেবে তারা বিবেচিত হচ্ছে। যার জন্য আওয়ামী বিরোধী ভোটগুলো তারা পাবেন না, তাদের নির্ভর করতে হয় আওয়ামী লীগের ভোটে সমর্থন। কিন্তু স্বতন্ত্র প্রার্থীরা যদি আওয়ামী লীগের ভোটগুলো মোটা অঙ্ক নিয়ে যান তাহলে ১৪ দল এবং জাতীয় পার্টির প্রার্থীদের জন্য একটি বড় ধরনের বিপদ তৈরি হতে পারে।

বিভিন্ন নির্বাচনী এলাকা পর্যবেক্ষণ করে দেখা গেছে, উপনির্বাচনগুলোতে জাতীয় পার্টি আলাদাভাবে যেখানে যেখানে নির্বাচন করেছে একমাত্র রংপুর সিটি কর্পোরেশন ছাড়া আর কোথাও তারা ভাল করতে পারেনি। এমনকি সম্মানজনক ভোটও পায়নি অনেক এলাকায়। তাদের তুলনায় হাতপাখা (ইসলামী আন্দোলন) অনেক স্থানে ভালো ফলাফল করেছে। এ কারণেই জাতীয় পার্টি স্বতন্ত্র বা আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীদের বিরুদ্ধে। একই কারণে ১৪ দলের শরিকরাও স্বতন্ত্র প্রার্থীর উপস্থিতি চান না।

বিভিন্ন সূত্র থেকে পাওয়া খবরে জানা গেছে যে, জাতীয় পার্টি এবং ১৪ দলের শরিকরা আশঙ্কা করছেন শেষ পর্যন্ত যদি স্বতন্ত্ররা নির্বাচনে থাকেন এবং নির্বাচন যদি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয় তাহলে তাদের একটা বড় বড় ধরনের ভরাডুবি ঘটার সম্ভাবনা আছে। এরকম ঝুঁকি তারা নিতে চান না।

© এই নিউজ পোর্টালে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
/ month
placeholder text

সম্পর্কিত আরও পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

সর্বশেষ খবর

জাতীয় সংসদ নির্বাচন

সারাদেশ

গোপালগঞ্জে আগুনে পুড়ে নারী নিহত

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে আগুনে পুড়ে স্বপ্না দাস(৪৮)নামে এক নারীর মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। আজ শুক্রবার(২৩ ফেব্রুয়ারী)দুপুরে উপজেলার ওড়াকান্দি ইউনিয়নের ওড়াকান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আগুনে পুড়ে মারা...

রাজনীতি

রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

দেশের মানুষ যাতে স্বস্তিতে থাকতে পারে, সেজন্য নবনিযুক্ত মন্ত্রীদের আসন্ন পবিত্র রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ...
- Advertisment -




Recent Comments