33 C
Gopālganj
মঙ্গলবার, জুন ২৫, ২০২৪
Bookmark
0
মূলপাতাঅর্থনীতিকাজু বাদামে সমৃদ্ধির হাত ছানি

কাজু বাদামে সমৃদ্ধির হাত ছানি

Prosperity is the cataract of cashew nuts

মনোজ সাহা, বিশেষ প্রতিনিধি।।

গোপালগঞ্জে কাজু বাদাম সমৃদ্ধির হাত ছানি দিচ্ছে । এ বাদাম এ বছর গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার রাতইল হর্টিকালচার সেন্টারে প্রথম ফলেছে। এ সাফল্যে গোপালগঞ্জ, ফরিদপুর, মাদারীপুর, রাজবাড়ী, শরীয়তপুর নড়াইল, যশোরসহ দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলায় কাজু বাদাম চাষের উজ্জ্বল সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। কাজু বাদাম খেতে সুস্বাদু। এটি  খুবই পুষ্টিকর খাদ্য। বাজারে এ বাদামের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। প্রতি কেজি কাজু বাদাম বাজারে  ১ হাজার থেকে  ১ হাজার ৫ শ টাকা দরে বিক্রি হয়। উচ্চ মূল্যের এ ফসল চাষাবাদ করে এ অঞ্চলের কৃষক লাভবান হবেন। দেশের অর্থনীতিকে করবেন সমৃদ্ধ।

immage 1000 02 28

গোপালগঞ্জ হর্টিকালচার সেন্টারের উপ-পরিচালক ড. আমিনুল ইসলাম বলেন, এ হর্টিকালচার সেন্টারে কাজু বাদামের এলএ-৪, ভাসকরা ও এম-২৩ জাতের ৩ টি মাতৃ গাছ রয়েছে। এ গাছ থেকে হর্টিকালচার সেন্টারে ৫০টি কাজু বাদামের গাছ সৃজন করা হয়েছে। এ বছর ৩ প্রজাতির ৫০টি কাজু গাছেই কাজু বাদাম ধরেছে। এটি হর্টিকালচার সেন্টার প্রতিষ্ঠার ৮ বছরের মধ্যে অন্যতম সেরা সাফল্য।

immage 1000 03 4

তিনি বলেন, এখন এই হর্টিকালচার সেন্টার থেকেই কাজু বাদামের চারা তৈরী করা হবে। এ চারা দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলায় ছড়িয়ে দেয়া হবে। কৃষক কাজু বাদাম উৎপাদন করে খোরপোষের কৃষিকে বানিজ্যিক কৃষিতে রূপান্তরিত করতে পারবেন। তারা তাদের আয় ২ থেকে ৩ গুন বৃদ্ধি করে দেশের সমৃদ্ধিতে অবদান  রাখবেন।

immage 1000 04 2

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী হর্টিকালচার সেন্টারের উদ্যান তত্তবিদ এ. এইচ. এম. রাকিবুল হাসান বলেন, অর্থকারী ফসল হিসেবে সারা বিশ্বে কাজু বাদাম তৃতীয় স্থান অধিকার করেছে। বাংলাদেশে এ বাদাম খুবই সমাদৃত। বছরে আমাদের দেশে  ৬ লাখ কেজি কাজু বাদাম আমাদানী করা হয়। আমাদের অঞ্চলের আবহাওয়া কাজু বাদাম চাষের উপযোগি। তাই সরকার কাজু বাদামের আমাদানী নির্ভরতা কমাতে পাহাড়ি এলাকায় কাজু বাদাম চাষের উদ্যোগ গ্রহন করে। সে ধারবাহিকতায় সরকার কম্বোডিয়া থেকে ৫০ কেজি কাজু বীজ আমদানী করে।

immage 1000 05 1

তিনি বলেন, এ বীজ দিয়েই দেশের হর্টিকালচার সেন্টার গুলোতে মাতৃগাছ তৈরী করা হয়। আমরা ৩টি মাতৃ গাছ থেকে এখানে ৫০টি গাছ সৃজন করেছি। এসব গাছে কাজু ধরেছে। এটি কাজু বাদাম চাষে নতুন সম্ভাবনা সৃষ্টি করেছে। ওই কর্মকর্তা আরো জানান, বাংলাদেশের পাহাড়ে প্রতিবছর উৎপাদিত হচ্ছে মাত্র ১ লাখ কেজি কাজু বাদাম। পাহাড় ও সমতলে কাজুর আবাদ বৃদ্ধি করে বৈদেশিক মূদ্রা সাশ্রয় করা সম্ভব । এই কাজু আমাদের এ অঞ্চলের কৃষককে সমৃদ্ধি এনে দেবে।

গোপালগঞ্জ কৃষি সম্প্রসারণের ডিডি ড. অরবিন্দু কুমার রায় বলেন, কৃষক শুধু কাজু বাদাম সংগ্রহ করে বিক্রি করেই টনে ৬০ হাজার থেকে ১ লাখ টাকা লাভ করতে পারবে। এছাড়া কাজু বাদাম সংগ্রহ, শুকানো, প্রক্রিয়াজাত করন সহ বিভিন্ন কাজে প্রচুর শ্রমিকের প্রয়োজন হয়।

immage 1000 06 1

তিনি বলেন, কাজুর আবাদে কৃষকের আয় যেমন বাড়বে, তেমনি শ্রমিকের চাহিদা বৃদ্ধি পাবে। এখানে নারী শ্রমিকরা বেশি কাজ করার সুযোগ পাবেন। পাহাড়ি অঞ্চলের পাশাপাশি সমতলেও কাজু বাদাম চাষের সমান সম্ভাবনা সৃষ্টি করেছে  গোপালগঞ্জ হর্টিকালচার সেন্টার। এটি আমাদের কৃষির জন্য সু সংবাদ। কাজু আমাদের কৃষিকে সমৃদ্ধ করবে। কৃষকের জীবন মান উন্নত হবে।

© এই নিউজ পোর্টালে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
/ month
placeholder text

সম্পর্কিত আরও পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

সর্বশেষ খবর

জাতীয় সংসদ নির্বাচন

নড়াইলে বিজয়ী ও পরাজিত প্রার্থীর পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন ; পূনরায় ভোট গ্রহনের দাবি

নড়াইল সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে পরাজিত ও বিজয়ী প্রার্থী পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন করেছে। পরাজিত প্রার্থী তোফায়েল মাহমুদের অভিযোগ তাকে কারচুপির মাধ্যমে হারানো হয়েছে। তিনি...

সারাদেশ

রাসেলস ভাইপার সহ বিষধর সাপ নিয়ে আতঙ্কিত না হওয়ার আহবান স্বাস্থ্য বিভাগের

রাসেলস ভাইপার সহ যে কোন বিষধর সাপ নিয়ে আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন গোপালগঞ্জ স্বাস্থ্য বিভাগ। গোপালগঞ্জের সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ জিল্লুর রহমান গোপালগঞ্জ...

রাজনীতি

রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

দেশের মানুষ যাতে স্বস্তিতে থাকতে পারে, সেজন্য নবনিযুক্ত মন্ত্রীদের আসন্ন পবিত্র রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ...
- Advertisment -




Recent Comments