আরও
    মূলপাতাআন্তর্জাতিকআত্মহত্যা প্রতিরোধে কাজ করছেন সঞ্জয় বিশ্বাস

    আত্মহত্যা প্রতিরোধে কাজ করছেন সঞ্জয় বিশ্বাস

    Sanjay Biswas is working to prevent suicide.

    ভারতের কোলকাতা থেকে বাইসাইকেল চালিয়ে বাংলাদেশের গোপালগঞ্জ জেলার কোটালীপাড়ায় এসেছেন সঞ্জয়  বিশ্বাস (৩৫) নামে এক যুবক।

    গত সোমবার (৫ ডিসেম্বর) সঞ্জয় বিশ্বাস কোটালীপাড়ায় এসেছেন বলে তিনি জানিয়েছেন। কোটালীপাড়ায় এসে গত ২দিন ধরে সঞ্জয় বিশ্বাস আত্মহত্যা প্রতিরোধে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রচারাভিযান করছেন।

    আজ বুধবার(৮ ডিসেম্বর) কোটালীপাড়া উপজেলা সদরে বসে কথা হয় সঞ্জয় বিশ্বাসের সাথে। গত ২৬ সেপ্টেম্বর বাইসাইকেল চালিয়ে বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে এসেছেন বলে তিনি জানিয়েছেন।

    immage 1000 02 2

    বাংলাদেশে এসে সঞ্জয় বিশ্বাস যশোর, মাগুরা, নড়াইল, ফরিদপুর, রাজবাড়িসহ কয়েকটি জেলায় আত্মহত্যা প্রতিরোধে প্রচারাভিযান চালিয়েছেন।এরপর তিনি এসেছেন গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায়।কোটালীপাড়া উপজেলার চিতশী গ্রামে তার পৈত্রিক ভিটা রয়েছে বলে জানিয়েছেন। দেশ ভাগের পরে তার পূর্ব পুরুষেরা ভারত চলে যায়। ওখানে গিয়ে বসবাস শুরু করেন কোলকাতার উত্তর ২৪ পরগোনা জেলার গাইঘাটা থানার গুটরি গ্রামে। তার পিতার নাম সুমন্ত বিশ্বাস।

    immage 1000 03 1

    ২০২১ সালের আগষ্ট মাস থেকে সঞ্জয় বিশ্বাস আত্মহত্যা প্রতিরোধে প্রচারাভিযান শুরু করেন। এরআগে ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে সঞ্জয় বিশ্বাস আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। এখান থেকে সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসলে চিকিৎসকের পরামর্শে তিনি সাইক্লিং শুরু করেন। এরপরই শুরু হয় তার আত্মহত্যা প্রতিরোধে প্রচারাভিযান। কোলকাতার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রচারাভিযান চালানোর পরে তিনি ভারতের শিলিগুড়ি, জলপাইগুড়ি, টাইগারহিল, দারজিলিং, আসাম, মেঘালয়, বিহার, উত্তর প্রদেশ, হারিয়ানা, পাঞ্জাব, রাজস্থান, গুজরাট, মহারাষ্ট্র, দিল্লিাতে প্রচারাভিযান চালিয়েছেন।

    immage 1000 04 1

    ২০১১ সালে কোলকাতার হাবড়া শ্রী চৈতন্য কলেজ থেকে ডিগ্রী পাস করার পরে উত্তর প্রদেশের আমোঠি গিয়ে ফাস্ট ফুডের ব্যবসা শুরু করেন সঞ্জয় বিশ্বাস। করোনার আসার পরে তিনি এই ব্যবসায় ক্ষতির সম্মুখীন হয়। এরপর তিনি আত্মহত্যার পথ বেঁছে নিয়েছিলেনন বলে জানিয়েছেন।

    সঞ্জয় বিশ্বাস বলেন, “আত্মহত্যা কোন সমস্যার সমাধান দিতে পারে না। বরং আত্মহত্যা করার পরে আপনজন যারা বেঁচে থাকে তাদেরকে সমস্যায় পড়তে হয়। তাই আমি এই আত্মহত্যার প্রবনতা থেকে সকল নরনারীকে রক্ষার প্রচারাভিযানে নেমেছি।আমি বাংলাদেশে এসে কয়েকটি জেলায় ঘুরেছি। বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রচারাভিযান চালিয়েছি। আমি কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের সহযোগিতা পেলে বাংলাদেশের ৬৪ জেলায় আত্মহত্যা প্রতিরোধে প্রচারাভিযান চালাবো।”

    immage 1000 05 1

    কোটালীপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফেরদৌস ওয়াহিদ বলেন, সঞ্জয় বিশ্বাস কোটালীপাড়ায় এসে আমার সাথে যোগাযোগ করেছেন। তিনি তার সকল কাগজপত্র আমাকে দেখিয়েছেন। তিনি বৈধ পথেই বাংলাদেশে এসেছেন। ইত্যেমধ্যে তিনি উপজেলার রামশীল কলেজসহ কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রচারাভিযান চালিয়েছেন। তিনি যদি এ উপজেলায় আরো কিছুদিন থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতে আত্মহত্যা প্রতিরোধে প্রচারাভিযান চালান তাহলে তাকে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সহযোগিতা করা হবে।

    © এই নিউজ পোর্টালে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
    / month
    placeholder text

    সম্পর্কিত আরও পড়ুন

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    - Advertisment -

    সর্বশেষ খবর

    জাতীয় সংসদ নির্বাচন

    নড়াইলে বিজয়ী ও পরাজিত প্রার্থীর পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন ; পূনরায় ভোট গ্রহনের দাবি

    নড়াইল সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে পরাজিত ও বিজয়ী প্রার্থী পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন করেছে। পরাজিত প্রার্থী তোফায়েল মাহমুদের অভিযোগ তাকে কারচুপির মাধ্যমে হারানো হয়েছে। তিনি...

    সারাদেশ

    কাশিয়ানীর গ্রাম থেকে নকল পন্যের কারখানা সন্ধান

    গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার ফুকরা ইউনিয়নের ভূলবাড়িয়া গ্রাম থেকে নকল পন্যের কারখানার সন্ধান পাওয়া গেছে। আজ শনিবার (১৩ জুলাই)বিকেলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক মোঃ...

    রাজনীতি

    বঙ্গবন্ধুর রক্তের উত্তরাধিকার; এই গৌরব সমগ্র বাঙালি জাতির- বাংলাদেশ রাষ্ট্রের

    বাংলাদেশ রাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠাতা ও বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের লিগ্যাসি আজ পুরো পৃথিবীকে অবাক করেছে। তাঁর তৃতীয় প্রজন্ম টিউলিপ সিদ্দিক সারা বিশ্বের...
    - Advertisment -




    Recent Comments