বিয়ে না করে সন্তানের জন্ম দেওয়ার সাহস নেই

There is no courage to give birth to a child without getting married

images 10000 01 2
নিজের ছোটবেলা থেকেই ‘শিক্ষা’ নিয়েছেন মাসাবা?

ভিভ রিচার্ডস ও নীনা গুপ্তর মেয়ে মাসাবা। সেই মেয়ে বড় হয়েছেন। ফ্যাশন ডিজাইনার-অভিনেত্রী হিসেবে পরিচিতিও পেয়েছেন যথেষ্টই। মাসাবা নিজে কি পারবেন বিয়ে ছাড়াই সন্তানের জন্ম দিতে? মায়ের মতো সে সাহস তাঁর নেই, সোজাসাপ্টাই জানিয়ে দিলেন ‘মাসাবা মাসাবা’র নায়িকা।

বাবার নাম ভিভ রিচার্ডস। মা নীনা গুপ্ত। ক্রিকেট-বলিউডের যুগলবন্দিতে তাঁদের দুরন্ত প্রেমের চর্চাকেও টেক্কা দিয়েছিল মেয়ে মাসাবা গুপ্তর জন্মের খবর। ঢি ঢি পড়ে যায় গোটা দেশে। কারণ? মাসাবা যে বিবাহ-বহির্ভূত সন্তান!

ভিভকে বিয়ে না করেই কী ভাবে সন্তানের জন্ম দিয়ে ফেললেন নীনা? সে প্রশ্নেই মেতে গিয়েছিল আসমুদ্রহিমাচল। নীনার সেই মেয়ে বড় হয়েছেন। ফ্যাশন ডিজাইনার-অভিনেত্রী হিসেবে পরিচিতিও পেয়েছেন যথেষ্টই। মাসাবা কি পারবেন বিয়ে ছাড়াই সন্তানের জন্ম দিতে? সে সাহস তাঁর নেই, সোজাসাপ্টাই জানিয়ে দিলেন ‘মাসাবা মাসাবা’র নায়িকা।

কিন্তু কেন? একলা মায়ের কাছেই তাঁর বড় হওয়া। বাবা ভিভের সঙ্গে কদাচিৎ দেখাসাক্ষাৎ, সময় কাটানোর সুযোগ। সেই মাসাবাই কেন বিয়ে ছাড়া সন্তানের জন্ম দিতে পিছপা?

এক সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী-ডিজাইনারের দাবি, ‘‘বিবাহ-বহির্ভূত সন্তান হিসেবে বেড়ে ওঠার সময়ে বরাবরই আমাকে শুনতে হয়েছে, আমি অতিরিক্ত আধুনিক। শুনতে হয়েছে আমার মা-কেও।

আধুনিকতার তকমা নেতিবাচক ভাবেই লেগেছিল আমাদের গায়ে। মায়ের মতো বিয়ে না করে সন্তানের জন্ম দেওয়ার সাহস তাই আমার নেই।’’

নিজে আধুনিক নারী। তবু নিজের ছোটবেলা থেকে ‘শিক্ষা’ নিয়ে মাসাবা চান না একই রকম মানসিক চাপের পরিস্থিতি তৈরি হোক আর একটি শিশুর জীবনেও। বলি পাড়ার চর্চা বলছে, বিবাহবহির্ভূত সন্তানের জন্ম দিতে না চাওয়ার পিছনেও সেই ভাবনাই কাজ করছে মাসাবার।

আধুনিকতার সংজ্ঞা তাঁর কাছে ঠিক কী?

সাক্ষাৎকারে মাসাবা বলেন, ‘‘কেউ শুধু আধুনিক হলেই হয় না, গ্রহণযোগ্যতা তৈরি করাটাও তারই দায়িত্ব। সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে নিজের ভাবনাচিন্তা পাল্টে নেওয়াটাও জরুরি।

তবে যে নীতিবোধ, সংস্কার নিয়ে বেড়ে ওঠা, আধুনিক হতে গিয়ে সেই শিকড়কে ভুললে চলে না। প্রকৃত আধুনিক পুরুষ তাই তাঁকেই বলা যায়, যাঁর মধ্যে নতুন এবং পুরনোর সেই মিশেল রয়েছে।’’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here